1. bijogk@gmail.com : voice of mohalchhari : voice of mohalchhari
  2. info@www.voiceofmohalchhari.com : ভয়েস অফ মহালছড়ি :
বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ০৫:২৭ অপরাহ্ন
সর্বশেষ :
মহালছড়িতে কল্পনা চাকমার অপহরণকারী লে.ফেরদৌস গংদের সাজার দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশে। ১৯০০ সালের রেগুলেশন বাতিলের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের দাবিতে ইউপিডিএফের অবরোধ কর্মসূচি চলছে। মহালছড়িতে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ। মহালছড়িতে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নির্বাচনে ২০২৪-এ পদপ্রার্থী যারা। বান্দরবানে নিরীহ বম ছাত্র-ছাত্রী ও সাধারণ জনগণকে গণগ্রেফতার বন্ধের দাবিতে ইউপিডিএফের বিক্ষোভ মিছিল। স্থানীয় প্রশাসনের প্রতি বাজার বয়কট কমিটির আহ্বান। মাইসছড়ি বাজার বয়কট এক মাস স্থগিতের সিদ্ধান্ত। আন্তর্জাতিক নারী দিবসের পথিকৃৎঃ ক্লেরা জেটকিন দীর্ঘ আড়াই মাসের ও অধিক সময় মাইসছড়ি বাজার বন্ধ। খাগড়াছড়ি সদর ইউনিয়নে ধুল্যেতে সেনাবাহিনীর বাড়ি-ঘর তল্লাশি : জনমনে আতঙ্ক।

মহালছড়িতে ইউপিডিএফের উদ্যোগে শহীদ বিপুল, সুনীল, লিটন ও রুহিনের শোক সভা পালিত।

প্রতিবেদকের নাম:
  • প্রকাশিত: রবিবার, ১৭ ডিসেম্বর, ২০২৩
  • ২৬২ বার পড়া হয়েছে

খুনিদের ক্ষমা নেই,বীর শহীদ বিপুল, সুনীল, লিটন ও রুহিন’র রক্ত ভেজা পথে অধিকার আসবেই- স্লোগানকে সামনে রেখে মহালছড়িতে শহীদ বিপুল, সুনীল, লিটন ও রুহিন ত্রিপুরা’র স্মরণে ইউপিডিএফ মহালছড়িত ইউনিটের উদ্যােগে এক শোক সভার আয়োজন করা হয়।
আজ ১৭ ডিসেম্বর রোজ রবিবার দুপুর ২.০০ ঘটিকার সময় মহালছড়িতে ইউপিডিএফ সংগঠক স্থির চাকমার সভাপতিত্বে পূরণ চাকমার সঞ্চালনায় সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে রাখেন সংগঠক বিজগ খীসা, এলাকার মরুব্বি সুমতি চাকমা।

আলোচনা সভা শুরুর আগে উপস্থিত সকলকে কালো ব্যাজধারন করিয়ে শহীদের অস্থায়ী বেদীতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধাঞ্জলী জানায় এবং শহীদদের স্মরণে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।
আলোচনা সভায় পার্টির সংগঠক বিজগ খীসা বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামের একমাত্র লড়াকু আপোষহীন সংগঠন ইউপিডিএফ। পার্টি জন্মলগ্ন থেকে নিপীড়ন নির্যাতনের বিরুদ্ধে আপোষহীন ভাবে আন্দোলন সংগ্রাম করে যাচ্ছে। অনেক চড়াই উৎরাই, জেল-জুলুম ও অনেক বীর শহীদের বিনিময়ে ও পার্টি তার পথ থেকে এক পা ও পিচু হঠেনি। দেশের বাক স্বাধীনতা বন্ধ করে, মিছিল, মিটিং সমাবেশে গ্রেফতার করে, মামলা- হামলা ও খুন করে আমাদের অস্তিত্ব রক্ষার আন্দোলনের গতিপথ রোধ করা যাবেনা। মিথুন, পলাশ, তপনদের হত্যা করেছে আন্দোলন থেমে থাকেনি। বিপুল, সুনীল, লিটনদের খুন করেও থামানো যাবেনা। তাদের আত্মোৎসর্গই আমাদের আরো অনুপ্রাণিত করবে।
এলাকার মরুব্বি সুমতি চাকমা বলেন, এমন নারকীয় হত্যাকান্ড একমাত্র চেতনাহীন বিবেকশূন্য পশু সদৃশরাই করতে পারে। এই অস্তিত্ব সংকটের মুহূর্তে এমন নারকীয় ঘটনা আমাদের কাম্য নয়।হত্যাকারী যে হোক না কেন সেই সহিংস পথ পরিহার করে আদর্শিক মুক্তির আন্দোলনে সামিল হওয়ার আহব্বান জানান তিনি।
শোক সভা থেকে বক্তারা অবিলম্বে হত্যাকারীদের গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: 𝐈𝐍𝐓𝐄𝐋 𝐖𝐄𝐁